Update News

জেলা আ’লীগের কমিটিতে আসছেন মাশরাফি

আগামী ৩ ডিসেম্বর (রোববার) নড়াইল জেলা আওয়ামী লীগের ত্রি-বার্ষিক সম্মেলন অনুষ্ঠিত হবে। এরই মধ্যে সম্মেলন ঘিরে নানা জল্পনা-কল্পনা শুরু হয়েছে। এবারের সম্মেলনের চমক হিসেবে থাকছে নড়াইল-২ আসনের সংসদ সদস্য মাশরাফি বিন মর্তুজার দলে অন্তর্ভূক্তি।
কিন্তু কোন পদে পেতে যাচ্ছেন নড়াইল এক্সপ্রেস তা জানতে হলে ৩ ডিসেম্বর পর্যন্ত অপেক্ষা করতে হবে। তবে দলীয় নেতাকর্মীরা বলছেন, যেহেতু তিনি সংসদ সদস্য সেজন্য দলের নীতি নির্ধারণী পদই পাবেন।
২০১৮ সালের নভেম্বরে আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক ওবায়দুল কাদেরের হাত থেকে নড়াইল-২ আসন থেকে নির্বাচনের জন্য মনোনয়নপত্র সংগ্রহের মাধ্যমে রাজনীতিতে পদার্পণ ঘটে বাংলাদেশ ওয়ানডে ক্রিকেট দলের অধিনায়ক মাশরাফি বিন মর্তুজার। পরে ওই নির্বাচনে নৌকা প্রতীক নিয়ে বিপুল ভোটে জয়লাভ করে সংসদ সদস্য নির্বাচিত হলেও আওয়ামী লীগের কেন্দ্রীয় ও স্থানীয় পর্যায়ে এখন পর্যন্ত কোনো কমিটিতে নাম আসেনি এ ক্রিকেট দলপতির।
নড়াইল জেলার ত্রি-বার্ষিক সম্মেলনে আওয়ামী লীগ সাধারণ সম্পাদক ওবায়দুল কাদেরেসহ কেন্দ্রীয় পর্যায়ের সিনিয়র নেতারা উপস্থিত থাকবেন বলে জানা গেছে। কমিটি আসা না আসা নিয়ে মাশরাফির কোনো বক্তব্য পাওয়া না গেলেও অন্তর্ভুক্তির বিষয়টি নিশ্চিতই বলে জানিয়েছেন নেতারা।
এদিকে জেলার বিভিন্ন চায়ের দোকানসহ বিভিন্ন রাজনৈতিক আলোচনার কেন্দ্রবিন্দু এখন মাশরাফি।
কয়েকজন আওয়ামী লীগ নেতার সঙ্গে কথা বলে জানা গেছে, মাশরাফিকে সাংগঠনিক দায়িত্ব না দিলেও নীতিনির্ধারণী পর্যায়ে থাকবেন।
যেহেতু দলের সাধারণ সম্পাদক ওবায়দুল কাদের আসবেন তাই স্থানীয় অনেকের ধারণা, মাশরাফিকে জেলা কমিটির বড় যে কোনো পদের দায়িত্বও দিতে পারেন।
মাশরাফির নাম কমিটিতে আসার ব্যাপারটি এখন ‘টক অব দ্য টাউন’ হলেও বিষয়টি নিয়ে কেউ মুখ খুলতে নারাজ।
এ বিষয়ে জেলা আওয়ামী লীগের বর্তমান অ্যাডভোকেট সভাপতি সুবাস চন্দ্র বোস সাংবাদিকদের বলেন, মাশরাফি কোন পদ পাচ্ছেন বা পেতে পারেন সে বিষয়ে সম্মেলন শেষ হওয়ার আগে কিছু বলা যাচ্ছে না। তবে যেহেতু তিনি একজন সংসদ সদস্য সেহেতু গুরুত্বপূর্ণ কোনো পদ পেতে পারেন।
সংসদ সদস্য নির্বাচিত হওয়ার পর থেকে নড়াইলের উন্নয়নের জন্য ছুটে বেড়াচ্ছেন মাশরাফি। এছাড়া ২০১৭ সালের ৪ সেপ্টেম্বর থেকে মাশরাফির নেতৃত্বে নড়াইল এক্সপ্রেস ফাউন্ডেশন নামে সম্পূর্ণ স্বেচ্ছসেবী একটি সংগঠন যাত্রা শুরু করে। ইতোমধ্যে ফাউন্ডেশন সাধারণ ও দুস্থ মানুষকে আর্থিক সাহায্য, স্বাস্থ্যসেবা, কৃষি বীজ বিতরণ, সোলার বিতরণ, শিক্ষা, আইসিটি, খেলাধুলা, সাংস্কৃতিক কার্যক্রম, পরিবেশসহ বিভিন্ন বিষয় নিয়ে কাজ করছে এবং ব্যাপক প্রশংসাও কুড়াচ্ছে।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

*